বাংলাদেশে পূর্ণশক্তির দল পাঠাবে না ইংল্যান্ড!

বাংলাদেশে পূর্ণশক্তির দল পাঠাবে না ইংল্যান্ড!

আগামী অক্টোবরে মাঠে গড়াবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এর আগে ইংল্যান্ড জাতীয় দল আসবে বাংলাদেশ সফরে। তবে বিশ্বকাপের আগে গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দিতে বাংলাদেশ সফরে আসবে না পূর্ণশক্তির ব্রিটিশ দলটি, এমনই ইঙ্গিত ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) শীর্ষস্থানীয় এক কর্তার।

আগামী অক্টোবরে মাঠে গড়াবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এর আগে ইংল্যান্ড জাতীয় দল আসবে বাংলাদেশ সফরে। তবে বিশ্বকাপের আগে গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দিতে বাংলাদেশ সফরে আসবে না পূর্ণশক্তির ব্রিটিশ দলটি, এমনই ইঙ্গিত ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) শীর্ষস্থানীয় এক কর্তার।

সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ সফরে এসে ইংলিশরা টাইগারদের বিপক্ষে খেলবে টি-টোয়েন্টি, প্রস্তুতি নেবে এশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপের জন্য। তবে বিশ্বকাপে এই প্রস্তুতিতে থাকবেন না ইংল্যান্ডের বেশ কয়েকজন তারকা ক্রিকেটার।

আগামী সেপ্টেম্বরের ১৯ বা ২০ তারিখ বাংলাদেশ সফরে আসবেন বলে জানিয়ে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড ইসিবির ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যাশলে জাইলস জানান, বিশ্বকাপের আগে আইপিএল হলে সেখানে খেলতে দেওয়া হবে না ইংলিশ ক্রিকেটারদের।

করোনার কারণে থমকে যাওয়া আইপিএল সেপ্টেম্বরে, বিশ্বকাপের প্রাক্বালে আয়োজন করতে চায় ভারত। তবে সেই সময়ে ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দেওয়ার পক্ষে ইসিবি।

জাইলস বলেন, ‘আমাদের হাতে পূর্ণাঙ্গ সূচি রয়েছে। সেপ্টেম্বরে টেস্ট সিরিজ শেষ করার পর ১৯ বা ২০ সেপ্টেম্বরের দিকে আমরা বাংলাদেশ সফরে যাব। তারপর পাকিস্তান সফর ও টি-২০ বিশ্বকাপ রয়েছে।’

জাইলস আলাদা করে উল্লেখ করেছেন বাংলাদেশ সফরের কথা। বাংলাদেশে না এলেও ক্রিকেটারদের আইপিএলে পাঠানো হবে না, বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তিনি।

জাইলস বলেন, ‘ছেলেদের কোনো একটা সময়ে বিশ্রাম দেওয়া হবে নিশ্চিত। তবে বিশ্রাম দেওয়ার উদ্দেশ্য এই নয় যে, বাংলাদেশ সফরে না গিয়ে তারা অন্য কোথাও ক্রিকেট খেলবে।’

জাইলস স্পষ্ট করেছেন, বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজের আগে ক্রিকেটারদের ফুরফুরে রাখতেই তাদের এই সিদ্ধান্ত। তিনি জানান, ‘আমাদের সূচি মেনে চলতে হবে। দেখতে হবে টি-২০ বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজের আগে যাতে ক্রিকেটাররা ভালো অবস্থায় থাকে।’


Leave a Reply

Your email address will not be published.