আগে আলিয়ার বিয়ে, তারপর ক্যাটরিনার

আগে আলিয়ার বিয়ে, তারপর ক্যাটরিনার

বিশ্বের অন্যতম প্রতিযোগিতাপূর্ণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বলিউডে নাকি ‘বেস্ট ফ্রেন্ড’ বলে কিছু নেই, সবাই কাজের বন্ধু। অথবা কেবল ক্যামেরার সামনে বন্ধু। কাজ বা ক্যামেরা নেই তো বন্ধুত্বও নেই। তবে সেসবকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে আলিয়া ভাট আর ক্যাটরিনা কাইফ বেস্ট ফ্রেন্ড হিসেবে উপস্থিত হয়েছেন বেশ কিছু অনুষ্ঠানে। তাঁরা এতটাই ভালো বন্ধু, বয়সে ৯ বছরের বড় ক্যাটরিনা প্রথমে ৪ বছর প্রেম করেছেন রণবীর কাপুরের সঙ্গে। তারপর আলিয়া শুরু করলেন বেস্ট ফ্রেন্ডের সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে প্রেম! সেই প্রেম এখন বলিউডের সবচেয়ে আলোচিত ঘটনাগুলোর একটি।

ভোগ ম্যাগাজিনের ভারতীয় সংস্করণের আয়োজনে বেস্ট ফ্রেন্ড হিসেবে উপস্থিত হয়েছিলেন আলিয়া আর ক্যাটরিনা। সেখানে ক্যাটরিনা জানান আলিয়াকে প্রথম দেখার অনুভূতি। ৩৭ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী বলেন, ‘তখন সবে স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার মুক্তি পেয়েছে। একটা রেস্টুরেন্টে এক পার্টিতে প্রথম আলিয়ার ওপর চোখ পড়ে। প্রথম দেখাতে আমার মনে হয়েছিল, কিউট, চটপটে একটা পিচ্চি মেয়ে।’ তারপর তো আলিয়া আর ক্যাটরিনা বন্ধু হয়ে গেলেন। একসঙ্গে ব্যায়াম করেন তাঁরা। তাঁদের সম্পর্ক অনেকটা বোনের মতো। নিজের বিয়ের নাম নেই, তবে আলিয়ার বিয়ে খাওয়ার পরিকল্পনা করেই যাচ্ছেন ক্যাটরিনা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘আমি চাই আমার আগে আলিয়ার বিয়ে হোক। ছোট বোনকে বিয়ে না দিয়ে আমি কীভাবে বিয়ে করি? একটা দায়িত্ব আছে না? সে সুন্দর করে কনের সাজে সাজবে, ফুঁপিয়ে কাঁদবে। তার কান্না দেখে আমারও চোখে জল চলে আসবে। তাকে বিবাহিত জীবনে সুখী দেখে তারপর আমি বিয়ে করব।’

আলিয়াও ক্যাটরিনাকে উপদেশ দিতে ভোলেননি। ক্যাটরিনার অতিরিক্ত ব্যায়াম করাকে কটাক্ষ করেছেন তিনি। খোঁচা দিয়ে বলেছেন, ‘সারা দিন জিমে পড়ে থাকো কেন? কিছু সময় প্রেমিক খোঁজার কাজে ব্যয় করো। একটু কফি খাওয়া, গল্প করার পেছনে ব্যয় করতে পারো!’

অবশ্য দুজনের এই বন্ধুত্ব এখন অতীত। মুখে কিছু না বললেও কেউ কারও ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লাইকও দেন না।


Leave a Reply

Your email address will not be published.